টাটকা খবর

BSF জওয়ান শেখ রিয়াজউদ্দিন গেপ্তার!পাকিস্থানে গোপন তথ্য পাচার করতো এই বিশ্বাসঘাতক।

নিউজ চ্যানেলের ডিবেটে মাঝে মধ্যেই কিভাবে কট্টরপন্থী নেতাদের পোল খুলে যায় সেটা আপনার নিশ্চয় দেখেছেন। এই সমস্থ কট্টরপন্থীরা ধর্মকে ভারতের থেকে বড়ো দাবি করে। এই কট্টরপন্থীরা ধর্মের নামে দেশের সংবিধানকে পর্যন্ত ছোটো করে। ভারত মাতার জয় বললে ধর্মের অপমান হয় বলেও দাবি করে এই বিশেষ কট্টরপন্থীর দল। সংবিধানের থেকে নিজেদের ধার্মিক বইকে বড়ো বলে দাবি করে উগ্রবাদী কট্টরপন্থীরা। এবার ভারতের প্রতি এদের নিষ্ঠা কতটা থাকবে এটা যেকোনো সুস্থ ব্যাক্তি আন্দাজ করতে পারবে। BSF খুব ভরসা করে শেখ রিয়াজউদ্দিনকে ফোর্সে সামিল করেছিল। শেখ রিয়াজউদ্দিনকে BSF এ সামিল করার পর তাকে দেশের সেবায় নিযুক্ত করা হয়েছিল।

কিন্তু শেখ রিয়াজউদ্দিন ধার্মিক কট্টরতার পরিচয় দিয়ে পাকিস্থানের প্রতি নিষ্ঠা দেখিয়ে দিয়েছে। ধৰ্ম আগে দেশ পরে এই মানসিতা নিয়ে, ধর্মের খাতিরে শত্রু দেশ পাকিস্থানের সাথে হাত মিলিয়েছিল শেখ রিয়াজউদ্দিন। এই কট্টরপন্থী শেখ রিয়াজউদ্দিন BSF এর সমস্থ গোপনীয় তথ্য পাকিস্থানকে পাঠিয়ে দিত। জানিয়ে দি, এখন শেখ রিয়াজউদ্দিনকে পাঞ্জাবের ফিরোজপুর থেকে গেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ শেখ রিয়াজউদ্দিনের কাছে থেকে ২ টি মোবাইল ফোন ও ৭ টি সিমকার্ড পেয়েছে। ২৯ তম ব্যাটালিয়নের BSF এর অপারেটর পদে কাজ করা এই জওয়ান মহারাষ্ট্রের লাতুর জেলার বাসিন্দা বলে জানা গেছে। পাকিস্থানের গুপ্তচর মির্জা ফয়জলের সাথে ভারতের শেখ রিয়াজউদ্দিন লাগাতার সম্পর্কে থাকতো এবং নানা ছবি, তথ্য, ফোন নাম্বার পাক গুপ্তচরকে পৌঁছে দিত।

শেখ রিয়াজউদ্দিন BSF এই গোপন তথ্য পাকিস্থানকে পৌঁছে দেওয়ার জন্য ফেসবুকে মাসেঞ্জার ব্যাবহার করতো বলে খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ প্রাপ্ত ফোনগুলিতে সমস্থকিছু তদন্ত করে দেখছে। উল্লেখ্য দীপাবলির দিকে লক্ষ রেখে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ নিয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close