টাটকা খবর

বড় খবর : আবার বাংলায় শাসক দলে ভাঙ্গন , মুকুল রায়ের হাত ধরে যোগ দিলেন ..

মুকুল রায় যাকে বাংলার রাজনীতিতে চানক্য বলা হয়। কারন মুকুল বাবুর রাজনৈতিক বুদ্ধি অত্যন্ত তোখড়। বাংলার যেকোনো রাজনৈতিক নেতার থেকে মুকুল রায়ের রাজনৈতিক বুদ্ধি অনেক গুনে বেশি। সেই জন্যই উনাকে চাণক্য নামেও ডাকা হয়। আর মুকুল রায়ের এতসুন্দর রাজনৈতিক চিন্তাধারা দেখার পরই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ জি মুকুল বাবু কে দলের বাড়তি দায়িত্ব দিয়েছেন। তারপর থেকেই মুকুল বাবু যেন একটি আলাদা এনার্জি পেয়েছেন তার কাজে। আর তার সেই এনার্জি ভালোভাবেই দেখা যাচ্ছে তার কাজের মাধ্যমে।

এবার নিজের দলের উপর ভরসা হারিয়ে মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করলেন শ্রীমতী রুবি মুখার্জী যিনি হলেন প্রদেশ কংগ্রেস সদস্য। তার সাথে শাসক দলের একজনও এইদিন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। শাসক দলের সেই নেতার নাম অমলেশ জিদ্দু সরকার, ইনি শুধু শাসক দলের একজন নেতাই নয় ইনি হলেন তৃণমূলের একজন প্রাক্তন সভাপতি। এছাড়াও এইদিন আরও একজন বিশিষ্ট মানুষ বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন যার নাম শুনলে আপনারা অবাক হয়ে যাবেন, উনি হলেন কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী। এনারা প্রত্যেকেই এইদিন বিজেপির রাজ্য অফিসে এসে বিজেপিতে যোগ দেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন রাজ্য বিজেপির নেতা মুকুল রায় মহাশয়।

মুকুল রায় এনাদের আনুষ্ঠানিক ভাবে বিজেপিতে স্বাগত জানিয়েছেন একটি সাংবাদিক সম্মেলন করার মধ্য দিয়ে। উনারা বিজেপিতে যোগ দিয়ে জানিয়েছেন যে, আমাদের পুরোনো দলে আমাদের স্বাধীনভাবে কথা বলার কোনো অধিকার ছিল না। সেখানে অনেক অসামাজিক কাজকর্ম হত কিন্তু সেই সকল কাজের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানোর অধিকার আমাদের ছিল না সেই জন্যই আমরা সাধারণ মানুষের হয়ে কাজ করার জন্যই বিজেপিতে যোগদান করলাম। আজকে একসাথে এই তিন জন বিশিষ্ট নেতা এবং বিশিষ্ট মানুষের বিজেপিতে যোগদানের ফলে মহেশতলায় বিজেপির শক্তি যে একধাক্কায় অনেক গুন বেড়ে গেল সেটা বলাই যায়।
#অগ্নিপুত্র

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close