কুম্ভমেলার উপর নজর কট্টরপন্থী আতঙ্কবাদীদের! বিশ্বের বেস্ট সুরক্ষা টেকনিক নিয়ে ভারতে হাজির ইজরায়েল।

সাল ২০১৯ এ উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজে হিন্দুদের সবথেকে বড়ো উৎসব কুম্ভ মেলার আয়োজন হতে চলেছে। এই আয়োজন যোগী সরকার দ্বারা পরিচালিত হবে যেখানে একটা বিশাল সংখ্যায় হিন্দুরা পৌঁছাবে। এই আয়োজনে এত বিশাল সংখ্যায় মানুষ পৌঁছায় যে, মক্কা ও ভ্যাটিকান মিলিয়ে এত পরিমাণ লোক হয় না। পবিত্র কুম্ভ মেলায় ১০ কোটি হিন্দু পৌঁছায়। কম পক্ষে ১০ কোটি হিন্দু এই কুম্ভমেলায় পৌঁছায়। এই কারণে ইসলামিক আতঙ্কবাদীদের নজর এই মেলার উপর থাকে। যোগী সরকারের আমলে যেভাবে কুম্ভ মেলার প্রচার হয়েছে তাতে সংখ্যা ১৫ কোটি পৌঁছে গেলেও আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। তবে যত বেশি সংখ্যায় হিন্দু তীর্থযাত্রী পৌঁছাবে ততই বেশি সুরক্ষা নিয়ে চাপ থাকে সরকারের উপর। কুম্ভ মেলায় বিশাল সংখ্যায় সাধু, সন্ত ও মহাত্মাদের সাথে সমগ্র বিশ্বের হিন্দুরা এসে পৌঁছাবে।

এই পরিস্থিতিতে ইসলামিক আতঙ্কবাদীদের নজর এই মেলার উপর থাকবে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। এই কারণে যোগী সরকার মেলার সফল আয়োজন করতে সুরক্ষা ব্যাবস্থার বন্দোবস্ত করতে লেগে পড়েছে। যোগী সরকার হিন্দুদের সুরক্ষার জন্য কুম্ভ মেলার আয়োজনে বিশ্বের সবথেকে শক্তিশালী টেকনিক ব্যাবহার করার জন্য উদ্যোগী হয়েছে। কুম্ভ মেলায় বিশ্বের বেস্ট সুরক্ষা টেকনিক ব্যাবহার করতে চাই যোগী সরকার। তাই এবার ভারতের পরম মিত্র ইজরায়েল সুরক্ষা ব্যাবস্থার বন্দোবস্ত করতে এগিয়ে এসেছে।

জানিয়ে দি, সুরক্ষা টেকনিক মামলায় ইজরায়েল বিশ্বের ১ নাম্বার দেশ। কুম্ভ মেলার সুরক্ষার জন্য ইজরায়েলের সাহায্য নেওয়া হবে। যোগী সরকার এই ব্যাপারে ইজরায়েলের সাথে আলোচনা করে নিয়েছে। সোমবার দিন উত্তরপ্রদেশ পুলিশের  DGP অপি সিং ইজরায়েলের সুরক্ষা বিশেষজ্ঞদের সাথে বৈঠকে বসেছিলেন। কিভাবে সুরক্ষা ব্যাবস্থা সুনিশ্চিত করা হবে, আপাতকাল পরিস্থিতিতে কিভাবে সমস্যার সমাধান করা হবে, কুম্ভ মেলায় কট্টরপন্থীদের প্রবেশ কিভাবে আটকানো যাবে, কি ধরণের অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যাবহার করা এই সব বিষয়ে ওই দিন আলোচনা সম্পন্ন হয়েছে।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, স্বয়ং যোগী আদিত্যানাথ শীঘ্রই এই বিষয়ে ইজরায়েল এক্সপার্টদের সাথে বৈঠক করবেন। ওই বৈঠকে ইজরায়েল এক্সপার্টরা যোগী আদিত্যানাথকে একটা প্রেজেন্টেশন দেখাবেন যেখানে বলা হবে কিভাবে বিশ্বের সবথেকে আধুনিক টেকনিক ব্যাবহার করে হিন্দু শ্রদ্ধালুদের সুরক্ষা নিশ্চত করা হবে। এবারের কুম্ভ মেলা শুদু আয়োজন বা প্রস্তুতির দৃষ্টি থেকে নয় বরং অত্যাধুনিক সুরক্ষার দিক থেকেও দেখার মতো হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close