মধ্যবিত্ত পরিবারের জন্য বড়ো খবর! মোদী সরকারের পদক্ষেপে দাম কমছে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের।

আমরা হয়তো এমন অনেকেই আছি যাদের সারা মাসে সংসারের খরচ করার পর খুব বেশি টাকা হাতে থাকে না বাড়তি কিছু করবার বা কিছু কিনবার জন্য। কারণ আমাদের দেশে যারা মধ্যবিত্ত রয়েছে তাদের মাস মাইনের বেশির ভাগ টাকায় খরচ হয়ে যায় সাংসারিক কাজকর্মের জন্য। সাংসারিক খরচ বাঁচিয়ে যেটুকু টাকা হাতে থাকে সেটাই নিজেদের সাধের রেফ্রিজারেটর বা ওয়াসিং মেশিন কেনা সম্ভব হয় না। কিন্তু এবার সেই সব চিন্তা থেকে সাধারণ মানুষের কিছুটা স্বস্তি হবে। কারণ এবার কেন্দ্র সরকারের বিশেষ সিদ্ধান্তের জন্য সাধারণ মানুষের চিন্তা কমতে চলেছে। কারণ এবার কেন্দ্র সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে কিছু কিছু জিনিসের উপর এই মুহূর্তে যে পরিমান জিএসটি স্ল্যাব রয়েছে তার থেকে কম করার।

মঙ্গলবার একটি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে আসেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই অনুষ্ঠানে এসে তিনি দেশের জনগণের ভালোর কথা ভেবে তাদের জন্য একটা স্বস্তিদায়ক খবর দেন। মোদীজি সেই অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে জানান যে, সরকার নুতন করে পর্যবেক্ষণ শুরু করেছে জিএসটি স্ল্যাব নিয়ে। প্রধানমন্ত্রী জানান যে, সরকার সিদ্ধান্ত নিয়ে এই পরিকল্পনায় স্থির হয়েছে যে, ১৮ শতাংশের কম জিএসটি মূল্য করে দেওয়া হবে ৯৯ শতাংশ পণ্যের উপর। এছাড়াও এইদিনের অনুষ্ঠানে উনি দেশের জনগণের উদ্দেশ্যে বলেন যে, আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি যাতে জিএসটি প্রক্রিয়াকে আরও সরল করে তোলা যায়। সময়সাপেক্ষ হলেও এই প্রক্রিয়াকে আরও বেশি স্বচ্ছ করে তোলার চেষ্টা আমরা করে চলেছি, যাতে সাধারণ মানুষের বোঝার কোনো অসুবিধা না হয়।

যেসকল পণ্য গুলির উপর সর্বোচ্চ ২৮ শতাংশ জিএসটি চাপানো হয়েছিল সেগুলি হল ডিজিটাল ক্যামেরা, এয়ার কন্ডিশনার, ভিডিও গেম ইত্যাদি। এবার সরকার পরিকল্পনা নিয়েছে যে সেই সব পন্য গুলির উপর জিএসটি ২৮ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১৮ শতাংশ বা তার থেকেও কম করে দেওয়ার। এছাড়াও কেন্দ্রীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতর এই সব পন্য গুলি ছাড়াও অন্যান্য আরও কয়েকটি পণ্যের পুনর বিবেচনা করবে বলে ঠিক করেছে। এই পণ্য গুলি ছাড়াও যেসকল পন্য গুলির উপর জিএসটি স্ল্যাব কমানোর জন্য সরকার ভাবনাচিন্তা করছে সেগুলি হল পারফিউম, ট্রাক্টর, হিটার, রঙ এবং গাড়ীর বিভিন্ন যন্ত্রাংশ ছাড়াও একাধিক জিনিপত্র।

GST

বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে যে, কেন্দ্রীয় সরকারের জিএসটি কাউন্সিল আগামী শনিবারের মধ্যে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে। আর কেন্দ্রীয় সরকারের এমন সিদ্ধান্তের কারণে দেশের জনগণ যে বেশ খুশি সেটা বোঝায় যাচ্ছে।
#অগ্নিপুত্র

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close