পাকিস্তানের ঋণ ৬ হাজার বিলিয়ন থেকে বেড়ে ৩০ হাজার বিলিয়ন পার করেছে! ১ দিনের খরচ  চালানোর অর্থ নেই পাক সরকারের কাছে।



আতঙ্কবাদী ও জিহাদিদের শরণস্থল পাকিস্তানের অবস্থা খুব বেহাল হয়ে পড়েছে। পাকিস্তানে মঙ্গলবার (জুন ১১, ২০১৯) বাজেট-২০১৯ পেশ করা হয়েছে। পাকিস্তানে বাজেট প্রকাশ হওয়ার একদিন আগে অর্থাৎ সোমবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তানের চরম আর্থিক সংকট স্তিথি জনতার সামনে রেখে বললেন ” আপনাদের সবার কাছে আমার আবেদন যে আপনারা সম্পত্তি ঘোষিত স্কিমে অংশগ্রহণ করুন।
ইমরান খান বলেছেন যে গত দশ বছরে পাকিস্তানের ঋণ ৬ হাজার অরব টাকা দিয়ে বেড়ে গিয়ে ৩০ হাজার অরব টাকা হয়ে গেছে। ঋণ ডুবে থাকা পাকিস্থাকে অবস্থা খুবই খারাপ হয়েগেছে। দেশের পরিস্তিতিতে একটু ভালো করার আসায় ইমরান খান কে বলতে হয়েছে যে, যদি আপনারা ট্যাক্স না দেন তবে আমরা দেশকে আগে নিয়ে যেতে পারব না।

ইমরান খান ভেঙে পড়া পাকিস্তানের  অর্থ ব্যাবস্থাকে বোঝান এবং জনগণকে  বললেন যে, আপনারা যে বার্ষিকী ট্যাক্স দেন, মোটামুটি ৪ হাজার অরব টাকা,তার অর্ধেক এই ঋণের কিস্তি দিতে চলে যায়। আর যা বাকি টাকা বাঁচে সেই টাকায় এই দেশের খরচা চালানো সম্ভব না। জানিয়ে দি, পাকিস্তানকে এই অবস্থা থেকে বার করার জন্য সেখানকার লোকেদের অনেক বেশি পরিমাণে ট্যাক্স দিতে হচ্ছে। সাথেই ৩০ জুন ২০১৯ অব্দি  নিজের দেশকে সময় দিয়েছে যার মধ্যে তাদের নিজের বেনামি সম্পত্তি, বেনামি একাউন্টকে ঘোষিত করার জন্য আবেদন করেছেন। এমনকি ইমরান এটাও বলেছে যে ওনার কর্মকর্তারা সব জানেন।

ইমরান খানকে এরকম করতে হচ্ছে কারণ এই সময় পাকিস্তানের কাছে নিজের রোজের খরচা চালানোর জন্যও পর্যাপ্ত টাকা নেই। এই সময় পাকিস্তানের স্তিথি খুবই খারাপ, তার উপর সন্ত্রাসী ছবি সবার সামনে হওয়ায় এবং চরমরাই অর্থব্যবস্থার কারণে এই সময় পাকিস্তানকে কোনো দেশ ঋণ দেওয়ার জন্য তৈরি নয়। ইমরান খান নিজে পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী পদের শপথ নিয়ে বলেছিলেন যে গোটা ইতিহাসে দেশ এতটা ঋণগ্রস্থ কখনো ছিলনা, যতটা গত ১০ বছরে হয়ে গেছে।

ইমরান খান, সরকারের খরচা কমিয়ে কিছু ভাবে দেশ চালানোর উপায় বের করেছিলেন এবং এর জন্য লাক্সারি গাড়ি থেকে শুরু করে মহিষেরও নিলামী করেছিল। জানিয়ে দি, ইমরান খান কোনো ভাবে দেশের ডুবে যাওয়া অর্থ ব্যবস্থাকে সমর্থন করার জন্য প্রধানমন্ত্রী বাসস্থানের ১০২ টি লাক্সারি কারের মধ্যে ৭০ টি কার বেঁচে দিয়েছিলেন। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, জানিয়ে দি পাকিস্থানে ১১জুন, ২০১৯ এ সাধারণ বাজেট প্রকাশ করা হয়েছে। এটি ইমরান খান সরকারের প্রথম বাজেট। এইবারের বাজেট ৭.০২২ লাখ কোটি পাকিস্তানি টাকা।





Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close