ভারতীয়দের ১৫০০ কোটি টাকা লুট করে পলাতক ইসলামিক ব্যাংকার মহম্মদ মনসূর খান।



ব্যাঙ্গালুরুতে এক বিনিয়োগকারী ফার্মের মালিক বিনিয়োগকারীদের কোটি কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছে। কোম্পানির মালিকের বিরুদ্ধে পুলিশ বিভাগে মোটামুটি ৫ ঘন্টায় ৩৩০০টি অভিযোগ দাখিল হয়েছে। যারা অভিযোগ দাখিল করেছে তাদের মধ্যে বেশিরভাগই   ব্যাঙ্গালুরুর মুসলিম সম্প্রদায়ের লোক। আসলে ২০০৬ সালে খাড়ি থেকে ফেরা মহম্মদ মনসূর খান ইসলামিক ব্যাঙ্কিং ও হালাল বিনিয়োগের নামে একটি ফার্ম বানিয়েছিল যার নাম রাখা হয় আই মানিটারী এডভাইজরি (I Moneytary advisory)। ইসলামিক ব্যাঙ্কিং এর নামে মাংসূর খান নিজের সম্প্রদায়ের লোকেদের এই ফার্মে বিনিয়োগ করতে বলেন। উনি ওই মুসলিমদের টার্গেট করলেন যারা ইসলামিক আইনের ভয় কোনো আর্থিক ফার্মে নিয়োগ করতে ভয় পায়। বিনিয়োগ আসার পর মানসূর খান ওই টাকায় জুয়েলারি, রিয়েল এস্টেট, বুলিয়ান ট্রেডিং, ফার্মেসি, প্রকাশন শিক্ষা ও সাস্থ ক্ষেত্রে জমিয়ে ব্যাবসা করে ও টাকা ইনকাম করে। প্রায় ১৫০০ কোটি টাকা লুটে পলাতক হয়েছে মনসুর খান। এখন ইসলামিক ব্যাংকার মনসুরের উপর লুক আউট নোটিস জারি করা হয়েছে।

মুসলিম সমাজ থেকে টাকা বিনিয়োগ করিয়ে ও তাদের ১৪% থেকে ১৮% লাভের স্বপ্ন দেখিয়ে  এবার মানসূর খান উধাও হয়ে গেছে। বিনিয়োগকারী যখন ব্যাঙ্গালুরুর শিবাজীনগরে অবস্থিত IMA এর অফিসে নিজের টাকা চাইতে পৌঁছায় তখন সেখানে কেউ ছিলনা। এবার এখন মাংসূর খান কোথায় আছে কেউ জানেনা। মজার কথা হলো ওহাটস্যাপে মাংসূর খানের আওয়াজের একটি অডিও ক্লিপ ঘুরছে যেখানে মানসূর খান বলেছে যে তিনি নেতা ও বাবুদের ঘুষ দিতে দিতে হাপিয়ে গেছে তাই আত্মহত্যা করতে চান। অডিও ক্লিপে মানসূর খান এটিও বলেছে যে ব্যাঙ্গালুরুর এক কংগ্রেসি বিধায়ক রোশান বেগ ওনার ৪০০ কোটি টাকা দখল করে নিয়েছে।

যদিও রোশান বেগ অডিও ক্লিপের বাস্তবতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। পুলিশও খোঁজ করছে যে মাংসূর খান সত্যি সত্যি আত্মহত্যা করে নেওয়ার ঝুঁকি নেওয়ার পথে আছে কিনা। খবর অনুযায়ী পুলিশ অধিকারী ডিসিপি রাহুল কুমার সাহাপুরবার  জানিয়েছেন যে পুলিশ মাংসূর খানের খোঁজ করছে ও এটাও জানার চেষ্টা করছে যে অডিও ক্লিপটি বাস্তবে মানসূর খানের কিনা। মানসূর খানের আওয়াজের দাবি করা অডিও ক্লিপটি মহম্মদ খালিদ আহমেদ নামক মাংসূরের এক পার্টনারের  অভিযোগের একদিনপর সামনে এসেছে। মহম্মদ খালিদ আহমেদ  পুলিশে অভিযোগ দাখিল করিয়েছিল যে মানসূর তার ১.৩ কোটি টাকা নিয়ে পালিয়েছে।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close