বিজেপি করার অপরাধে এক মুসলিম যুবককে পিটিয়ে মারলো তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা



রাজ্যে ফের রাজনৈতিক হিংসার শিকার এক যুবক। ফের বিজেপির কর্মীকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠলো তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। এর আগে সন্দেশখালি, ভাটপাড়ায় বিজেপি কর্মীকে খুন করার পর এবার আমডাঙায় এক বিজেপি কর্মীকে খুন করলো শাসক দলের দুষ্কৃতীরা। আমডাঙা এর বহিচগাছিতে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, বছর দেড়েক আগে সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন বছর ২৩ এর যুবক নাজিমুল করিম। আর বিজেপি করার অপরাধেই তাঁর প্রাণ কেড়ে নিলো তৃণমূল।

অভিযোগ, গতকাল সন্ধ্যায় ডাক্তার দেখাতে বহিচগাছি বাজারে যান, বিজেপি কর্মী নাজিমুল করিম। সেই সময় বেশ কিছু তৃণমূল কর্মী নাজিমুলকে রাস্তায় দেখে চেলাকাঠ দিয়ে তাঁর মাথায় সজোরে আঘাত করে। সাথে সাথেই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে নাজিমুল। প্রথমে তাঁকে আমডাঙা প্রাথমিক স্বাস্থ কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে তাঁকে বারাসাত সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শারিরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে সেখান থেকে তাঁকে কলকাতার আরজি কর হাসপাতালে ট্র্যান্সফার করা হয়।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার ভোর বেলায় আরজি কর হাসপাতালে মৃত্যু হয় নাজিমুলের। এই ঘটনার পিছনে স্থানীয় তৃণমূল নেতা শওকত আলি এবং স্থানীয় তৃণমূল কর্মীদের হাত আছে বলে জানায় মৃতের পরিবার। যদিও এই মৃত্যুর পিছনে তাঁদের কোন হাত নেই বলে জানায় শওকত আলি।

এই ঘটনার পর চরম উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। পুলিশের গাড়ি দেখে উত্তেজিত জনতা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। নাজিমুলের বাবাও আগে সিপিএম করতেন। তিনি জানান, এর আগে আমরা সিপিএম করতাম, তৃণমূলের অত্যাচারে সাত মাস বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়িয়েছি। বিজেপির আশ্বাসে দুই মাস আগে বাড়িতে ঢুকতে পেরেছি। আর এবার বিজেপি করার অপরাধে আমার ছেলেটার প্রাণ কেড়ে নিলো তৃণমূল।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close