অর্জুন সিং এর হাত ধরে দাপুটে নেতা সহ চার তৃণমূলের কাউন্সিলর বিজেপিতে



তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর অর্জুন সিং বলেছিলেন, ‘যেভাবে ঘাম আর রক্ত ঝড়িয়ে তৃণমূল দলটাকে গড়েছি। ঠিক সেভাবেই ঘাম আর রক্ত ঝড়িয়ে ওই দলটাকে ভাঙব।” এই হুমকির পর ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের সাথে চরম প্রতিদ্বন্দ্বতা করে জয় এনেছিল অর্জুন সিং। শুধু তাই নয়, ভাটপাড়া বিধানসভা আসনে তৃণমূলের হেভিওয়েট প্রার্থীকে হারিয়ে ছেলে পবন সিং কেও জিতিয়েছিলেন তিনি।

এরপর ভাটপাড়া পুরসভায় তৃণমূলের কাউন্সিলরকে দলে টেনে তৃণমূলের হাত থেকে পুরসভা ছিনিয়ে নিয়েছিলেন বিজেপির সাংসদ অর্জুন সিং। তাছাড়া, নোয়াপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক সুনীল সিং এবং গারুলিয়ার ১২ জন কাউন্সিলরকে বিজেপিতে নিয়ে এসে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির ঘাঁটি শক্ত করেছিলেন অর্জুন সিং। এবার আবারও তৃণমূলে বড়সড় ভাঙন ধরালেন তিনি।

এবার টিটাগড় পুরসভার দাপুটে কাউন্সিলর মনিশ শুক্ল সমেত চার কাউন্সিলরকে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে নিয়ে এলেন অর্জুন সিং। ২৩ আসন বিশিষ্ট টিটাগড় পুরসভায় তৃণমূলের দখলে ছিল ১৯ টি ও বামেদের হাতে ছিল ৩ টি আসন। একটি আসন ফাঁকা। চার কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর শাসক দল তৃণমূলের কাউন্সিলর সংখ্যা হয়ে দাঁড়ালো ১৫।

টিটাগড় পুরসভায় তৃণমূলের হাতে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকলেও বোর্ড ভাঙনের আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছেনা। আর তাঁর সবথেকে বড় কারণ হল তৃণমূলের দাপুটে নেতা মনীশ গুপ্ত, আর তিনি এখন বিজেপিতে। আর এই মনীশ গুপ্তকে দিয়েই বোর্ড ভাঙার চেষ্টা চালাবে বিজেপি।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close