বস্তিতে থাকা মানুষদের জন্য মোদী সরকার নিয়ে এল দুর্দান্ত পরিকল্পনা! দেশকে বস্তিমুক্ত করার জন্য সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের।



দেশে বিকাশের গতি বাড়ানো বা দেশের ছবি পরিবর্তন করার জন্য মোদী সরকার দিন দিন বড়  সিদ্ধান্ত নিয়েই চলেছে । এক এক করে প্রায় প্রতিটি বর্গের জন্য মোদী সরকার পদক্ষেপ নিচ্ছে। যার মধ্যে কৃষক, শ্রমিক বর্গ, সেনা-জওয়ান বর্গ, সিনিয়র সিটিজেন থেকে শুরু করে সকল বর্গ রয়েছে। কৃষক থেকে শুরু করে সেনার জোয়ানদের পরিবারের জন্য সরকার প্ল্যান তৈরি করে ফেলেছে। এবার পালা অত্যন্ত গরিবদের। আমরা তাদের কথা বলছি যাদের নিজেদের ঘর পর্যন্ত নেই। যারা কাঁচা বাড়ি বা যারা বস্তিতে থাকে। এই বস্তি গুলি দেশের সুন্দরতায় বরাবর এলটি দাগ হয়ে আছে। তবে প্রশ্ন শুধু দেশের সুন্দরতার নয় এটি দেশের বিকাশের উপরও একটি বড় প্রশ্ন তৈরি করে।

সেই দিকে নজর রেখে মোদী সরকার নিজের দ্বিতীয় কার্যকালে গরিব ও শ্রমিকদের একটি বিশেষ পুরস্কার দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে। এই পরিকল্পনার অধীনে দেশের মেট্রো শহরে গরিব ও শ্রমিকদের পাকা বাড়ি ভাড়ায় দেওয়া হবে।
যেখানে তারা ইলেকট্রিক ও  জলের সুবিধা পাবে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ৩ লাখ টাকা বছরে বা তার চেয়ে কম আয় সেই গরিব পরিবারদের মহানগরে এক কক্ষের বাড়ি দেওয়া হবে। সরকারের এই পরিকল্পনা ভাউচার স্কিমের অধীনে চলে যাবে। বাসস্থান ও শহরী মামলার মন্ত্রালয় একই মামলায় কাজ করবে। পরিকল্পনাকে তারপর প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা পরিকল্পনার সাথে জুড়ে দেওয়া হবে। শ্রমিক ফান্ডের মাধ্যমে এই পরিকল্পনা কে শুরু করার প্ল্যান রয়েছে।

যার জন্য একটি হাউসিং বোর্ড বানানো হবে। প্ল্যানের বিশেষ ব্যাপার হলো নিজ কোম্পানি গুলিও বাড়ি বানানোর অনুমতি পাবে। অর্থাৎ কিছু ভাগ গুলিতে কমার্সিয়াল ইউজ বা ব্যবহারের জন্য ছেড়ে দিয়ে বাকি জায়গা গুলিকে শ্রমিক বা মজদুর বর্গের জন্য রাখা হবে। যেখানে তাদের জন্য ভাড়ার বাড়ি বানানো হবে। জানিয়ে দি, এই পরিকল্পনার অধীনে ভাড়া হাউসিং বোর্ড ঠিক করবে। প্রথমে ৩ লাখের চেয়ে কম আমদানির লোকেদের রেজিস্ট্রেশন হবে। তার ভাউচার ভাগ করা হবে তারপর ভাড়া এই ভাউচার বোর্ডকে দিতে হবে।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close