রেলেওয়েতে করা হবে ৫০ লক্ষ কোটি টাকার ইনভেস্ট! রেলের প্রাইভেটাইজেশন নিয়ে মুখ খুললেন রেলমন্ত্রী।



দেশের রেল প্রণালীকে সারা পৃথিবীতে সর্বশ্রেষ্ঠ বানানোর জন্য সরকারের নজর ২০৩০ অব্দি রেলওয়েতে ৫০ লাখ কোটি টাকা বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। রেল মন্ত্রী পীযুষ গোয়েল (piyush Goyal) শনিবার এই বিবৃতি দিয়েছেন। গোয়েল বলেছেন গত ৬৫ বছরে পর্যাপ্ত বিনিয়োগ না করার ফলে দেশে রেলওয়ের মৌলিক গঠনে মাত্র ৩০ শতাংশ বৃদ্ধি হয়েছে। শুক্রবার পেশ হওয়া সাধারণ বাজেট ২০১৯-২০ এর উপর নিজের মন্তব্যে গোয়েল বললেন যে সরকারের ২০৩০ অব্দি রেলওয়ের ৫০ লাখ কোটি টাকার বিনিয়োগের পরিকল্পনা আছে। যাতে এটিকে পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ রেলওয়ে প্রনালী তৈরি করা যেতে পারে। এরমধ্যে যাত্রীদের সুরক্ষা, নেওয়ার্কের বিস্তার ও মাল ভাড়ায় অংশীদারি বাড়ানো অন্তর্ভুক্ত আছে।

উনি বললেন যে বিগত ৬৫ সালে রেলওয়েতে বিনিয়োগ কম ছিল যার ফলে মৌলিক গঠনে মাত্র ৩০ শতাংশে বৃদ্ধি হয়েছে। যেখানে  মাল ও যাত্রীদের বোঝায় ১৫০০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে যাত্রীদের অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে ।  এখানে বিজেপির সদস্যদের অভিযানে আরম্ভর পর আয়োজিত কার্যক্রম থেকে আলাদা হয়ে সংবাদমাধ্যমের সাথে কথাবার্তা বলছিলেন।
রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল শনিবার বলেন ভারত রেলওয়ের কিছু খন্ডে বিনিয়োগের জন্য প্রাইভেট খাতের জন্য খোলা যেতে পারে। উনি বললেন প্রাইভেট সংস্থা লাইসেন্স ফীসের বদলে এই খণ্ডগুলির উপর রেলমন্ত্রীর সঞ্চালন করা যাবে।

উনি বললেন  নিজ এলাকার বিনিয়োগ আকর্ষিত করা নিয়ে সরকার বিচার করছে, কিন্তু ভারতীয় রেলের প্রাইভেটাইজেশন করা হবে না। গোয়েল বললেন, ” আলাদা আলাদা মডেল আছে, জেটার আমরা অনুকরণ করতে পারি। আমরা ভারতীয় রেলের বিকাশ চাই। কিছু এলাকা এমন হতে পারে যেখানে প্রাইভেট সংস্থা নিজের লাইন ছড়াতে পারবে। আমাদের কোনো সমস্যা হবে না। তারা আমাদের থেকে লাইসেন্স নিতে পারবে। রেলওয়ে নিজের রাজস্ব বাড়াতে সক্ষম হবে। যদি রেলের রাজস্ব বাড়ে তবে এটি নিজের যাত্রীদের আরো ভালো সুবিধা প্রদান করতে পারবে।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close