মোদীর চাপে নিলাম হওয়ার পরিস্থিতিতে পুরো পাকিস্তান! পাক সরকারের উপর ব্যান জারি করতে পারে FATF



নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) সরকার এবার পাকিস্তান সমস্যাকে শেষ করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে। পাকিস্তান দেশ যদি কিছু বছরের মধ্যে নিলামে উঠে তাহলেও অবাক হওয়ার কিছু নেই। ভারতের  প্রধান মন্ত্রীর শপথ গ্রহণে সব প্রতিবেশী দেশকে ডাকা হয় কিন্তু পাকিস্তানকে জমিয়ে অপমান সহ্য করতে হয়েছিল যখন ইমরান খানকে এই লিস্ট থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়। এরপর কিরগিস্থানের রাজধানী বিশকেক এ আয়োজিত সংঘাই করপোরেশনের অর্গানাইজেশনের মিটিংয়েও প্রধানমন্ত্রী মোদী, ইমরান খানকে কাছাকাছি আসারও সুযোগ দেয়নি। এবার কমনওয়েলথ দেশের বিদেশ মন্ত্রীদের বৈঠকেও এমন কিছুই হতে চলেছে। এই বৈঠক লন্ডনে আয়োজিত করা হয়েছে। এতে কমানবেল্টে উপস্থিত সব দেশর বিদেশ মন্ত্রীরা অংশ নেবেন। কমনওয়েলথ বৈঠকে মোট ৫৩ টি দেশ উপস্থিত আছে। এইসব দেশগুলি অতীতে ব্রিটিশ উপনিবেশ ছিল। ভারত ও পাকিস্তানও এর অংশ।

ভারতের তরফ থেকে এতে বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং পাকিস্তানের তরফ দিয়ে শাহ মেহমুদ কুরেশি উপস্থিত থাকবেন। পাকিস্তান হাত পা মারছে যে কোনো ভাবে তাদের বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশির ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এর সাথে একটি মিটিং করা যেতে পারে। কিন্তু ভারত পরিষ্কার করে দিয়েছে যে যতক্ষণ ভারত সন্ত্রাসবাদের রপ্তানি আটকাবে না ততক্ষণ কোনো রকমের দ্বিপক্ষীয় কথাবার্তা হওয়ার কোনো সম্ভবনা নেই। ভারত আগে থেকেই পাকিস্তানকে আন্তঃরাষ্ট্রীয় মঞ্চে এক্সপোস করে এসেছে। মসুদ আজহারকে আন্তঃরাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসবাদী ঘোষিত করতে ভারত অভূতপূর্ব সফলতা প্রাপ্ত করে এবং এটি পাকিস্তানের মুখে কষিয়ে থাপড় মারার চেয়ে কিছু কম ছিল না।

অন্যদিকে ভারতের আন্তর্জাতিক চাপে সন্ত্রাস ফাইনেনসিং এর জন্য ফিনান্সিয়াল একশন টাক্স ফোর্স(FATF) পাকিস্তানের উপর ব্যান লাগানোর উপর চিন্তাভাবনা করছে। পাকিস্তানের অর্থব্যবস্থা এমনিতেই ভেঙে পড়েছে। এর মধ্যে আরো কিছু পদক্ষেপ নিলে পাকিস্তান নিলামে উঠে যেতে পারে। পাকিস্তানের এক বিশেষজ্ঞ এর দাবি যে এইভাবে চলতে থাকলে পুরো পাকিস্তান বিক্রি হয়ে যাওয়ার পর্যায়ে চলে যাবে। পাকিস্তান এই সময় ভিক্ষার উপর বেঁচে আছে, তাই ভারতের সাথে কথাবার্তা বলার সুযোগ ধরে তারা  আন্তঃরাষ্ট্রীয় মঞ্চে নিজের সুনাম তৈরি করার জন্য ছটপট করছে। কিন্তু আতঙ্কবাদের জন্য কুখ্যাত পাকিস্তানকে ভারত কোনোভাবেই সুযোগ দিতে রাজি নয়।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close