লাভ জিহাদের ফাঁদে পড়ে বিয়ে করেছিল হিন্দু যুবতী! বিয়ের পর ইসলাম কবুল করতে দেওয়া হচ্ছিল চাপ।



মুম্বাই থেকে এক খবর সামনে আসছে যা হিন্দু মেয়েদের চোখ খুলে দেবে এবং কল্পনা থেকে বেরিয়ে বাস্তব জগতে বাস করতে সাহায্য করবে। সোশ্যাল মিডিয়ার যুগ এবং জেহাদি
ফাইজুর মতো লোকজন চারিদিকে ঘুরে বেড়াচ্ছে হিন্দু মেয়েদের শিকার করার জন্য। মেয়েরা খুব সহজে শিকারে পরিণত হয় কারণ তারা নরম মনের হওয়ায় সেকুলারিজমের ডোজ একটু বেশি গ্রহণ করে ফেলে। “সবাই একই হয় না, প্রেম ধর্ম দেখে হয় না” ইত্যাদি ইত্যাদি সিনেমার ডায়লগ আমির খান, শাহারুখ খানের মতো অভিনেতারা মেয়েদের মাথায় বেশ ভালো ভাবেই ঢুকিয়ে দিয়েছে। ফলস্বরুপ হিন্দু মেয়েরা খুব সহজেই লাভ জিহাদের শিকার হয়ে নিজের সর্বনাশ করে ফেলে।

এমনকি এক ঘটনা মুম্বাই থেকে সামনে আসছে। সেখানে এক হিন্দু মেয়ে মুসলিম।ছেলের সাথে প্রেম করে নিকাহ করেছিল। নিকাহ করার আগে ছেলেটিও নিজেকে সেকুলার, সব ধর্মের সন্মানকারী হিসেবে মেয়েটির কাছে ব্যাক্ত করেছিল। অন্যদিকে মেয়েটি প্রথম থেকেই সেকুলার ছিল। এখন ১ বছর সংসার করার পর মেয়েটি সবার সামনে এসেছে। আর সবার সামনে আসার পর সে যা প্রকাশ করছে তা প্রত্যেক হিন্দু মেয়ের দেখা উচিত।

নিকহের পর ছেলেটি আলতাকিয়া (ছল) ছেড়ে তার আসল রূপে চলে আসে। মেয়েটির উপর অত্যাচার করে এবং ইসলাম কবুল করার জন্য চাপ দিতে থাকে। ছেলেটির বাড়ির লোকজনও চাপ দেয় ইসলাম কবুল করার জন্য। একই সাথে মেয়েটির ধর্ম নিয়েও ছেলেটি বাজে বাজে মন্তব্য করতো। মেয়েটি মানসিকভাবে এতটাই ভেঙে পড়েছিল যে আত্মহত্যা করার পিলস খেয়েছিল। যদিও কোনোভাবে সে বেঁচে যায়। এখন মেয়েটির মাথা থেকে সেকুলারিজম ও প্রেমের ভুত নেমে গেছে। এখন মেয়েটি নতুন করে নিজের জীবন শুরু করতে চাই এবং নিজের পরিবারের খেয়াল রাখতে চাই।





Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close