হিন্দুত্ববাদী ও রাষ্ট্রবাদীদের প্রতিবাদের জেরে কোরান বিলি শর্ত ফিরিয়ে নিল আদালত।



রাঁচির এক মেয়ে রিচা ভারতীকে আদালত জামিনের শর্ত হিসেবে ৫ টি কোরান বিতরণের জন্য বলেছিল। দেশের ন্যায় ব্যাবস্থার এমন লজ্জাজনক পরিস্থিতি দেখে বুদ্ধিজীবী, মিডিয়া নিশ্চুপ থাকলেও সুবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষজন বিষয়টির উপর প্রতিবাদ জানিয়েছিল। একটা হিন্দুবহুল কথিত সেকুলার দেশে জজের এমন শর্তের বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছিল অনেকেই। এমনকি ন্যায় ব্যবস্থার সাথে জড়িত বহুজন জজের শর্তের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছিল। ফেসবুকে পোষ্ট শেয়ার করার জন্য জজ যে শর্ত দিয়েছিল তা একদিকে যেমন ভণ্ডামি তেমনি দেশের জন্য একটা খারাপ সংকেত।

জানিয়ে দি, আদালতের এই রায়ের বিরুদ্ধে কোনোভাবেই মাথা নত করেননি সাহসী যুবতী রিচা ভারতী। যুবতী বলেছিলেন, আজ আদালত আমাকে কোরান বিলি করতে বলছে, কাল নামাজ পড়তে বলবে, পরশু ইসলাম কবুল করতে বলবে। তাই এমন আদেশ কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়। এখন ওই মামলায় একটা বড়ো খবর সামনে আসছে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, প্রতিবাদের চাপে আদালত নিজের শর্তকে ফেরত নিয়েছে।

রিচা ভারতীর উপর আদালতের নির্দেশ আসার পর দেশের এক বর্গের মধ্যে একটা আক্রোশ তৈরি হয়। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সেই আক্রোশ চারিদিক ছড়িয়ে পড়ে। আদালত ন্যায় বিচার দেওয়ার নামে ইসলামের প্রচার করার যে চেষ্টা করেছিল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু হয়। আর এখন শেষমেষ প্রতিবাদের জেরে আদালত রিচা ভারতীর উপর লাগানো শর্ত ফেরত নিতে বাধ্য হয়।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close