জেলের থেকে আট গুন বেশি সময় হাসপাতালেই কাটিয়েছেন চারা-চোর লালু প্রসাদ যাদব


জেলে যেতেই হাই প্রোফাইল মানুষ গুলো হটাৎই শরীর খারাপ হয়ে যায়। যদি রাঁচির বিরসা মুণ্ডা জেলের বিগত ১০ বছরের রেকর্ড দেখা হয়, তাহলে এই কথা প্রমাণিতও হয়ে যাবে। বিগত ১০ বছরে ডজন খানেক ভিভিআইপি ব্যাক্তিদের বিরসা মুণ্ডা জেলে ঢুকেই শরীর খারাপ হয়ে যায়, আর তাঁদের সেখান থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

জলজ্যান্ত দৃষ্টান্ত রাষ্ট্রীয় জনতা দলের প্রধান লালু প্রসাদ যাদব। ওনার এখন বয়স ৭১ হয়ে গেছে। ওনার সাজার ১৯ মাসের মধ্যে ১৭ মাস জেলেই কাটিয়েছেন তিনি। আর এত দিন বিলাসবহুল হাসপাতালে থাকার পরেও উনি সুস্থ হয়ে ওঠেন নি! উনি এখন রাঁচির রাজেন্দ্র ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সাইন্স হাসপাতালে ভর্তি। সেখানে ওনার সুরক্ষার জন্য ৪২ জন পুলিশ কর্মী মোতায়েন আছে। সেখানে তিনি পেয়িং ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালু প্রসাদ যাদব তিনটি আলাদা আলাদা পশুখাদ্য দুর্নীতি মামলায় ২০১৭ এর ২৩ ডিসেম্বর থেকে জেলে আছেন। একটি মামলায় উনি এই মাসে জামিন ও পেয়েছিলেন। জেলে যাওয়ার মাত্র দুমাসের মধ্যে স্বাস্থ্যের অজুহাত দেখিয়ে উনি ওই যে হাসপাতালে গেছেন, এখনো উনি হাসপাতাল থেকে বের হওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেন নি।

 



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close