ভারতের ভয়ে লাদাখ সীমান্তের পাশে যুদ্ধ বিমান মোতায়েন করল পাকিস্তান! যোগ্য জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত অভিনন্দনরা


 
জম্মু কাশ্মীর থেকে বিতর্কিত ৩৭০ ধারা খতম করার পর থেকেই ভারতের উপর চটে আছে পাকিস্তান। এবার তাঁরা যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চে কোন দেশেরই সমর্থন পায়নি পাকিস্তান। এমনকি রাষ্ট্রপুঞ্জ থেকেও খালি হাতে ফিরতে হয়েছে তাঁদের। আর তারপর থেকেই জম্মু কাশ্মীরে শান্তি ভঙ্গ করার চেষ্টায় আছে পাকিস্তান। প্রতিবেশী শত্রুদেশ পাকিস্তান গিলগিত-বালতিস্তান এর স্কদ্রু বিমান বন্দরে তাঁদের জেএফ-১৭ যুদ্ধ বিমান মোতায়েন করেছে। এই হাওয়াই আড্ডা লাদাখের কাছেই, ভারতীয় গোয়েন্দা বিভাগ গুলো পাকিস্তানের এই গতিবিধিতে কড়া নজর গাড়িয়ে বসে আছে।

সুত্র অনুযায়ী, ভারত পাক উত্তেজনার মাঝে পাকিস্তানি সেনা লাদাখের কাছে নিজেদের সেনা ছাউনিতে প্রচুর হাতিয়ার আর সেনার বাকি সামগ্রী একত্রিত করা শুরু করেছে। শনিবার পাকিস্তানি বায়ুসেনার তিনটি সি-১৩০ হারকিউলিস বিমান সেনার সামগ্রী নিয়ে গিলগিত-বালতিস্তান এর স্কদ্রু বিমান বন্দরে পৌঁছায়। সুত্র অনুযায়ী, পাকিস্তানি সেনা তাঁদের ছাউনিতে যেসমস্ত সামগ্রী একত্রিত করেছে, সেগুলো যুদ্ধের সময় তাঁদের লড়াকু বিমান গুলোকে সহায়তা করার কাজে লাগবে।

পাকিস্তান দ্বারা কোনরকম সম্ভাবিত বিপদের কথা মাথায় রেখে ভারতীয় সেনা আর বায়ুসেনা প্রস্তুতি সেরে নিয়েছে। ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা পাকিস্তানের প্রতিটি গতিবিধিতে নজর রাখছে। সীমান্তে সুরক্ষাও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সেনা, বায়ুসেনা আর নৌসেনা নিজেদের শক্তি বৃদ্ধি করেই চলেছে। এমনকি ভারত সরকার আরও বেশি করে প্রতিরক্ষা সামগ্রী কিনছে।

কিছুদিন আগেই কাশ্মীর সীমান্ত দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করতে আসা সাতজন পাকিস্তানি ব্যাট কম্যান্ডোকে খতম করেছিল ভারতীয় সেনা। তাঁরা সবাই ভারতে ঢুকতে চেয়ে বড়সড় জঙ্গি হামলার ছক কষছিল। এর আগে বালাকোট এয়ার স্ট্রাইকের পর ভারতের ভয়ে পাকিস্তানের রাতের ঘুম উড়ে গেছিল। আর সেই কারণে মাসের পর মাস নিজেদের এয়ার স্পেস বন্ধ রেখেছিল পাকিস্তান।

 



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close