বিজেপি শাসিত রাজ্যে রাস্তার নামাজ না পড়ার সিদ্ধান্ত নিলেন মুসলিমরা


এবার মানবতা দেখিয়ে রাস্তায় নামা না পড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাঁচির মুসলিম সমাজ। এক প্রতিষ্ঠিত মৌলবী নিজের ধর্মের মানুষের কাছে রাস্তায় নামাজ না পড়ার জন্য আবেদন করেছে। একরা মসজিদের মৌলানা উবেদুল্লাহ সাংবাদিকদের জানান, ‘আমরা আমাদের সম্প্রদায়ের মানুষদের রাস্তায় নামাজ না পড়ার জন্য বলেছি, কারণ এটা ইসলাম বিরোধী। অনেক মানুষই রাস্তায় নামাজ পড়ার জন্য লাইন লাগায়্‌ কিন্তু এবার থেকে এটা মসজিদের ভিতরেই করা হবে। আর এর জন্য মসজিদ চত্বরে যায়গাও বানিয়ে দেওয়া হবে।”

আজকে পর্যন্ত রাঁচির প্রচুর রাস্তায় যেগুলোর মধ্যে মহত্মা গান্ধী রোডের মতো ব্যাস্ততম রোডও যুক্ত আছে, সেখানে নামাজ পড়ার জন্য বিশেষ করে শুক্রবারের নামাজের জন্য হাজার হাজার মানুষ এসে জমা হতেন। যদিও, এই শুক্রবার প্রচুর সংখ্যক মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ রতন টকিজের পাশে একরা মসজিদের ভিতরেই নামাজ পড়েছেন।

মৌলানা উবেদুল্লাহ বলেন, ‘প্রধান সড়ক শহরের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা হয়। স্কুলের বার, অ্যাম্বুলেন্স এবং গুরুত্বপূর্ণ বাহন গুলো সেখান থেকে যায়। সেখানে নামাজ পড়া উচিত নয়। নামাজের নামে অন্যদের অসুবিধা করা ইসলাম বিরোধী।” উনি বলেন, এবার এই অভ্যাসকে বন্ধ করার জন্য রাঁচির সমস্ত মসজিদের মৌলবী গুলোর সাথে বৈঠক করা হবে। রাঁচির প্রতিটি মানুষই এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাবেন।

এর আগে যোগী আদিত্যনাথের উত্তর প্রদেশের মেরঠে সর্বপ্রথম রাস্তায় নামাজ পড়া নিষিদ্ধ করে প্রশাসন। যোগীর প্রশাসন থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয় যে, রাস্তায় নামা এবং আরতি কোনটাই করা যাবেনা। এই নিয়ম ভঙ্গ করলে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, শুক্রবারের নামাজ রাস্তায় পড়ার বিরোধিতা করে হিন্দু সংগঠনের তরফ থেকে মঙ্গলবার করে রাস্তায় আরতি এবং হনুমান চালিশা পড়ার কর্মসূচী পালন করা হয়। আর এই কর্মসূচী পালনের পরেই নড়েচড়ে বসে যোগীর প্রশাসন। এরপরই মেরঠ থেকে রাস্তায় সমস্ত রকম ধর্মীয় কার্যকলাপ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close