চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে নামার পর এবার ISRO এর পরবর্তী টার্গেট সূর্য! লঞ্চ করা হবে আদিত্য L -1


ইসরো (ISRO) এর মিশন চন্দ্রায়ণ -২  ৯৫% সফল হয়েছে। ল্যান্ডার বিক্রমকে পাওয়া গেছে। চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে ভারতে আগে কোনো দেশ ল্যান্ড করতে পারেনি। ভারত সেই ল্যান্ডিং করিয়ে দেখিয়েছে। ভারতের বিজ্ঞানীরা দেখিয়ে দিয়েছেন যে ভারত ঋষি মুনি, জ্ঞান, বিজ্ঞানের দেশ। ল্যান্ডারের সাথে যোগাযোগ স্থাপন হলে মিশন ১০০% সফল হবে। তবে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে ল্যান্ডার পৌঁছে দেওয়ার মতো কঠিন কাজ করে এখন প্রশংসা কুড়িয়েছে ভারতীয় প্রতিভাশালী বিজ্ঞানীরা। এখন ভারতের পরবর্তী মিশনটি হবে সূর্যের উপর। সূর্যকে অধ্যয়নের জন্য ইসরো প্রথম সৌর মিশন আদিত্য L -1 লঞ্চ করবে। সম্প্রতি ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (ইসরো) সভাপতি কে সিভান এ সম্পর্কে তথ্য দিয়েছেন।

সিভান বলেছিলেন – এই মিশনের উদ্দেশ্য হ’ল কোনও বাধা ছাড়াই সূর্যের উপর অবিচ্ছিন্ন নজর রাখা। আদিত্য L-1 সোলার অরাকে পর্যবেক্ষণ করার উদ্দেশ্য।
সিভান জানিয়েছেন যে আদিত্য L-1 মিশনটি কোনও বাধা বা গ্রহন ছাড়াই ধারাবাহিকভাবে সূর্যকে পর্যবেক্ষণ করতে পৃথিবী থেকে ১৫ লক্ষ কিলোমিটার দূরে লিজিয়েনারি পয়েন্ট 1 (এল -1) এর চারপাশে প্রদক্ষিণ করবে। একই সময়ে, ভারত মিশন চন্দ্রায়নের অধীনে বিক্রম ল্যান্ডারের সাথে কোনও যোগাযোগ করা হয়নি। আমাদের বিজ্ঞানীরা ল্যান্ডারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করছেন।
সোমবার চন্দ্রায়ণ -২ ল্যান্ডার বিক্রম সম্পর্কিত বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছিল। ইসরোর এক কর্মকর্তা বলেছিলেন যে অবতরণের সময় বিক্রম তির্যকভাবে পড়ে গিয়েছিল, তবে ভেঙে পড়েনি।

ল্যান্ডারের সাথে যোগাযোগের জন্য সমস্ত প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এর আগেও ল্যান্ডার উল্টে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছিল। তবে এখন স্পষ্ট যে ল্যান্ডার একটু তির্যক ভাবে রয়েছে। ল্যান্ডারের নিজের ইচ্ছায় ল্যান্ডিং করানোর প্রোগ্রামিং আগে থেকেই ছিল। এই কারণে লান্ডার চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে নেমে ইতিহাস তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। ISRO পুরো দেশের সমর্থন পেয়েছে, দেশবাসী বিজ্ঞানীদের ভরপুর ভালোবাসা দিয়েছেন। তাই ISRO থামার বা হতাশার কথা চিন্তা না করে পরবর্তী প্রজেক্ট এর উদ্যেশে এগিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা শুরু করেছে।



Source link

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close